বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন

বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন কাজল আগারওয়াল

৩১০

নিউজ ডেস্ক:
কয়েক মাস ধরে গুঞ্জন চলছিল বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন ভারতের দক্ষিণী চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল। তবে এতদিন বিষয়টি গুঞ্জন হিসেবে থাকলেও সম্প্রতি এর সত্যতা পাওয়া গেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, চলতি মাসেই বিয়ে করতে যাচ্ছেন কাজল আগারওয়াল। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হবে মুম্বাইয়ে। পিঙ্কভিলা বলছে, চলতি মাসের ৩০ তারিখে বিয়ে করতে যাচ্ছেন কাজল। এরই মধ্যে বাগদানও করে ফেলেছেন তিনি।

পাত্র কে? পাত্র কি শোবিজ কিংবা চলচ্চিত্র জগতের কেউ? এমন কৌতূহলেরও খোলাসা করে দিয়েছেন তারা। না, শোবিজের কাউকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন না কাজল। যাকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তার নাম গৌতম কিছলু। তিনি মূলত ব্যবসায়ী। একই সঙ্গে গৌতম সফল উদ্যোক্তা এবং তার ইন্টেরিয়র ডিজাইন নিয়ে একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

তাদের পারিবারিক সূত্রের বরাতে জানা গেছে, ইতোমধ্যেই কাজল ও গৌতমের বাগদানও সম্পন্ন হয়েছে। তাই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে মুখিয়ে আছে দুই পরিবারই। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা নিয়ে পরিবার জানিয়েছে, করোনা প্রকোপের মধ্যে বেশ ঘটা করেই অনুষ্ঠিত হবে কাজলের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা। শুধু তাই নয়, মুম্বাইয়ের একটি ফাইভ স্টার হোটেলে দুদিন বিয়ের আয়োজন করা হবে। যেখানে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে দুই পরিবারের বন্ধুসহ ঘনিষ্ঠজনদের।

নিজের বিয়ে নিয়ে আগাম কিছু বলতে নারাজ কাজল। সবার কাছে আশীর্বাদ চেয়ে কাজল আগারওয়াল বলেছেন, ‘প্রতিটি মানুষের জন্যই বিয়ে একটা স্বপ্ন। আমিও অন্য মেয়ের মতো নিজের মনে তিল তিল করে স্বপ্ন বুনেছিলাম, আমার জীবনে একটা নিজের মনের মতো কেউ আসবে। যার সামাজিক মর্যাদা ও প্রতিষ্ঠা থাকবে, আমাকে সব সময় খেয়াল রাখবে। আমার বিশ্বাস গৌতম সে রকমই মানুষ। সবাই আমাদের জন্য মঙ্গল কামনা করবেন, এটাই চাই আমার ভক্ত-অনুরাগীর কাছে।’

কাজল আগরওয়াল ২০০৪ সালে, কিউ! হো গায়া না চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বলিউডে যাত্রা শুরু করেন। ২০০৭ সালে লক্ষ্মী কালিয়ানাম চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তেলেগু চলচ্চিত্রে তার আত্মপ্রকাশ ঘটে। তার প্রথম বাণিজ্যিক সাফল্য ছিল চান্দামামা (২০০৭)। তবে তিনি জনপ্রিয়তা পান মাগাধীরা (২০০৯) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পর, যা ছিল তার অভিনীত ছবিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক সাফল্য। এই ছবির জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ তেলেগু ফিল্মফেয়ার পুরস্কারে মনোনীত হন। এরপর ডার্লিং (২০১০), বৃন্দাভানাম (২০১০), মি. পারফেক্ট (২০১১), বিজনেসম্যান (২০১২), নায়ক (২০১৩) এবং বাদশাহ (২০১৩) চলচ্চিত্রে ধারাবাহিক সাফল্যের মাধ্যমে তিনি তেলেগু চলচ্চিত্রে শীর্ষস্থানীয় অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন।

তিনি তামিল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন, নান মহান আল্লা (২০১০) তার উল্লেখযোগ্য কাজ। মাগাধীরা (২০০৯) চলচ্চিত্রের পর মাত্তারান (২০১২) এবং ঠুপ্পাক্কি (২০১২) ছবিগুলোও ব্যবসাসফল হয়। কাজল বলিউডে প্রত্যাবর্তন করেন সিংঘাম (২০১১) চলচ্চিত্রের মাধ্যমে, যা ছিল ব্লকবাস্টার হিট। এরপর তার পরবর্তী চলচ্চিত্র স্পেশাল ২৬-ও বক্স অফিসে সাফল্য পায়।

এদিকে করোনার কারণে আটকে আছে কাজল অভিনীত সিনেমা ‘ইন্ডিয়ান ২’। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন কমল হাসান। এ ছাড়া তাকে ‘মুম্বাই সাগা’, ‘প্যারিস প্যারিস’ সিনেমা ছাড়াও দেখা যাবে এবং একটি ওয়েব সিরিজে।

Niyog Biggopti

Leave A Reply

Your email address will not be published.